বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা কাউন্সিল গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ২০ ডিসেম্বর ২০১৫

জাতীয় কৃষি প্রদর্শনী কেন্দ্র, বিএআরসি এর সংক্ষিপ্ত বিবরণ

জাতীয় কৃষি জাদুঘর প্রতিষ্ঠার প্রাথমিক পদক্ষেপ হিসেবে জাতীয় কৃষি প্রদর্শনী কেন্দ্র (National Agricultural Display Centre) বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা কাউন্সিল, ফার্মগেট, ঢাকা চত্বরে স্থাপন করা হয়েছে । কৃষিতে বাংলাদেশ উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি ও সফলতা অর্জন করেছে । দেশ আজ খাদ্যে  স্বয়ংসম্পূর্ণ এবং কিছু কিছু ক্ষেত্রে উদ্বৃত্ত খাদ্য উৎপাদন ও স্বল্প পরিসরে ফসল রপ্তানিও হচ্ছে। প্রাগঐতিহাসিকাল থেকে কৃষি বাংলাদেশের অর্থনীতির চালিকাশক্তি হিসেবে বিবেচিত হয়ে আসছে । কৃষিতে বাংলাদেশের ইতিহাস-ঐতিহ্য ধরে রাখা এবং তা প্রদর্শনের জন্য এই প্রদর্শনী কেন্দ্র স্থাপন করা হয়েছে। এই কেন্দ্র পরিদর্শনের মাধ্যমে দেশের কৃষি গবেষণা প্রতিষ্ঠানসমূহ কর্তৃক উদ্ভাবিত প্রযুক্তিসমূহ সম্পর্কে জানা যাবে । তাছাড়া, দেশের কৃষির ইতিহাস-ঐতিহ্য, ধারাবাহিক বিবর্তন ও উন্নয়ন, জাতীয় অর্থনীতিতে এবং জীবন ও জীবিকায় এর অবদান ইত্যাদি বিষয় সম্পর্কে অবগত হওয়া যাবে ।

 

 

বিগত বেশ কিছুদিন ধরেই জাতীয় কৃষি জাদুঘর স্থাপনের প্রচেষ্টা চালানো হচ্ছিল। এই প্রচেষ্টার অংশ হিসেবে National Agricultural Technology Project এর আওতায় বিভিন্ন দেশে এ ধরনের স্থাপনা পরিদর্শন করা হয় এবং এ সম্পর্কিত লব্ধ অভিজ্ঞতার আলোকে এই জাতীয় কৃষি প্রদর্শনী কেন্দ্রটি স্থাপনের প্রচেষ্টা করা হয়েছে ।

 

কাউন্সিল চত্বরে অবস্থিত দু’তলা বিশিষ্ট জাতীয় কৃষি প্রদর্শনী কেন্দ্রটির মোট আয়তন ৪৪০০ বর্গফুট (প্রতি ফ্লোর ২২০০ ব.ফু) । নীচ তলায় আছে বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা কাউন্সিল ও জাতীয় কৃষি গবেষণা সিস্টেম (এনএআরএস) ভুক্ত ১২টি গবেষণা প্রতিষ্ঠানসহ মোট ১৩টি প্রতিষ্ঠানের উদ্ভাবিত বিভিন্ন প্রযুক্তি, উৎপাদিত দ্রব্য, গবেষণাসহ বিভিন্ন ধরণের কৃষি বিষয়ক প্রকাশনা । দ্বিতীয় তলায় টাচ স্ক্রীন ও টিভি ডিসপ্লে স্ক্রীনের মাধ্যমে কৃষির ইতিহাস, ঐতিহ্য, ধারাবাহিক বিবর্তন, জাতীয় অর্থনীতিতে কৃষির অবদান এবং জাতীয় কৃষি গবেষণা প্রতিষ্ঠানসমূহের পরিচিতি ও গবেষণা কর্মকান্ড জানা যাবে । এছাড়াও, জাতীয় কৃষি গবেষণা প্রতিষ্ঠানসমূহ কর্তৃক উদ্ভাবিত বিভিন্ন ফসলের জাত ও কৃষি যন্ত্রপাতিসহ কৃষি প্রযুক্তি-তথ্য ডিজিটাল ফর্মে প্রদর্শনের ব্যবস্থা আছে । কৃষি গবেষণা প্রতিষ্ঠানসমূহ কর্তৃক উদ্ভাবিত সম্ভাবনাময় প্রযুক্তির ভিডিও, ভেজাল সার চেনা, মাটির মায়া, সঠিক মাত্রায় জমিতে সার প্রয়োগ, ভাসমান কৃষি পদ্ধতিতে ফসল চাষ ইত্যাদি সম্পর্কিত ডকুমেন্টারি ভিডিও প্রদর্শনের ব্যবস্থা আছে ।

 

জাতীয় কৃষি প্রদর্শনী কেন্দ্র পরিদর্শনের মাধ্যমে গবেষক, শিক্ষক, সম্প্রসারণকর্মী, নীতিনির্ধারক, উন্নয়ন সহযোগী এবং শিক্ষার্থীগণ উপকৃত হবেন । বিদেশ থেকে আগত সরকারি প্রতিনিধি/আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক সংস্থার প্রতিনিধি/অতিথিবৃন্দ এই কেন্দ্র পরিদর্শনের মাধ্যমে বাংলাদেশের কৃষি তথা কৃষি গবেষণা ও উন্নয়ন বিষয়ে সম্যক ধারণা লাভ করতে পারবেন । বিশেষভাবে, স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীগণ কেন্দ্রটি পরিদর্শনের মাধ্যমে কৃষি সম্পর্কিত জ্ঞান ও অভিজ্ঞতা অর্জনে সক্ষম হবে ।

 

জাতীয় কৃষি গবেষণা সিস্টেমভুক্ত প্রতিষ্ঠান প্রধানদের সমন্বয়ে গঠিত বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা কাউন্সিল নির্বাহী পরিষদ এ্যাডভাইজরি কমিটি হিসেবে কেন্দ্রটির সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনা ও পরিচালনার জন্য সময় সময় প্রয়োজনীয় দিক নির্দেশনা প্রদান করবে । তদনুযায়ি, জাতীয় কৃষি গবেষণা সিস্টেমভুক্ত প্রতিটি প্রতিষ্ঠানের ফোকাল পয়েন্ট এবং বিএআরসি’র সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের সমন্বয়ে  গঠিত কমিটি কেন্দ্রের প্রদর্শিত বস্তু ও ডিজিটাল কনটেন্টসমূহ সংযোজন এবং আপডেট করার ব্যবস্থা গ্রহন করবে । এর ফলে কেন্দ্রটির উত্তরোত্তর উন্নয়ন সম্ভব হবে ।

 

প্রারম্ভিকভাবে স্বল্প পরিসরে হলেও সময়ের সাথে তাল মিলিয়ে কেন্দ্রটি কৃষি বিষয়ক বিভিন্ন তথ্যে সমৃদ্ধ হবে এবং অদূর ভবিষ্যতে এটি একটি পরিপূর্ণ আন্তজার্তিক মানের জাতীয় কৃষি জাদুঘরে পরিণত হবে বলে আশা করা হচ্ছে । এ ব্যপারে সংশ্লিষ্ট সকলের পরামর্শ ও আন্তরিক সহযোগিতা একান্তভাবে কাম্য ।


Share with :